Home / Affiliate Marketing / Affiliate Marketing Batch 25 | BITM এ ১৪৪ ঘন্টা| একটি ব্যাচ একটি পরিবার
Affiliate-Marketing-Batch-25
Affiliate Marketing Batch 25

Affiliate Marketing Batch 25 | BITM এ ১৪৪ ঘন্টা| একটি ব্যাচ একটি পরিবার

Affiliate Marketing Batch 25 আমরা শুরু করেছিলাম ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসের ১৬ তারিখ। পড়ন্ত বিকেলের ক্লাশগুলো আমার কাছে আনন্দই দিত। বিকাল ৫:৩০ টায় শুরু হত আমাদের ক্লাশগুলো। ১:৩০ টায় আমার কর্মস্থল ত্যাগ করে বাসায় গিয়ে দুপুরের খাবার খেয়ে সোয়া দুটোর দিকে রওয়ান দিতাম। বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট থেকে BITM Training Center কাওরান বাজার, ঢাকা এই বিশাল পথ পাড়ি দিতে হতো।

 

বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ (Free Training) :

উল্লেখ্য যে, বিআইটএম বর্তমানে SEIP Project এর মাধ্যমে Free SEO Training দিচ্ছে। বিশেষ করে ডিজিটাল মার্কেটিং, এফিলিয়েট মার্কেটিং, ওয়েব ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট, কাস্টমার সাপোর্ট সহ আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ ১ মাস ও ৩মাস ব্যাপী । এই সকল ফ্রি প্রশিক্ষণের পাশাপাশি দিচ্ছে স্টাইপেন্ড এবং মূল্যবান সার্টিফিকেট। যা দেশে বিদেশে খুবই গ্রহণযোগ্য।

Affiliate-Marketing-Batch-25
Affiliate Marketing Batch 25

রেল ভ্রমণের তিক্ত অভিজ্ঞতা :

রাস্তায় দীর্ঘ জ্যাম পাড়ি দিয়ে যেতে যেতে কখনো ৫.০০টা আবার কখনো ৫.৩০টাও বেজে যেত। পুরো রাস্তায় মোবাইল ব্রাউজিং বা ঘুমিয়েও কাটিয়ে দিতাম। প্রথম প্রথম আমি বিজয় পর্যন্ত ভিআইপি পরিবহনে যেতাম। কিন্তু এ রাস্তায় বেশি পরিমানে ভিআইপি সিগনাল থাকত যার কারণে অসম্ভব জ্যামে পড়তে হতো। তার কিছুদিন পর আমাদের ব্যাচের সোহেল ভাই বললেন যে আপনি তো ট্রেনে যেতে পারেন। আমিও তাই চিন্তা করে যথারীতি ক্লাশ শেষ করে কমলাপুর রেলস্টেশনে গিয়ে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করতে থাকলাম। ঐদিন ছিল বৃহস্পতিবা। যাইহোক যখন জয়দেবপুর গামী ট্রেণ পেলাম তখন ট্রেনের সবগুলো দরজাই এমনভাবে আটোসাটো করে লোক দাঁড়িয়ে যে ট্রেনে উঠাই মুশকিল হয়ে দাঁড়াল। অতিকষ্টে অন্যকোন ‍উপায় না পেয়ে দরজায় একটু দাঁড়ানোর সুযোগ পেলাম।

ট্রেন ছেড়ে দেবে এই সময় এমন চল্লিষোর্ধ্ব ভদ্রলোক তার ৭/৮ বৎসর বয়সী ছেলেকে নিয়ে উঠতে চাইলেন। কিন্তু গেটে এমন এক নাছোড়বান্দা দাঁড়িয়ে আছেন যিনি তাকে উঠতে দিচ্ছেন না দাঁড়ানোর মত কোন জায়গা নেই বলে। আচ্ছা অনেক কাকুতি-মিনতি করে ভদ্রলোকটি তার তনয় সহ উঠে দাঁড়ালেন। যেখানে আমরা ঠিক ভালোভাবে সোজা হয়ে দাঁড়াতেই পারছিলাম না সেখানে ঐ ছো্ট্ট ছেলের তো নাবিশ্বাস অবস্থা। তাও আবার একটু পরেই সে ঘুমে ঘুমে ঢুলু ঢুলু করতে লাগলো।

যখন আমি বিমান বন্দর (Shah Jalal International Airport Railway Station) স্টেশনে এসে পৌছলাম তখন তো এক বিভিষিকাময় অবস্থার সৃষ্টি হলো। যিনি গেটে ছিলেন তিনি তো একরকম ঝুলেই আছেন এমন অবস্থা তার উপরও আবারও লোক উঠতে চাচ্ছে। শুরু হলো বাহির থেকে চিল্লা পাল্লা।অবশেষে বাহিরের লোকেরা কমলাপুর থেকে উঠা গেটের সেই লোকটিতে টেনে নামিয়েও নিলো। আর যিনি গেটের শেষ প্রান্তে আছেন যে কি অবস্থা। তাকে হজম করতে হচ্ছে বাহিরের লোকদের অকথ্য ভাষায় গালাগালি আর অসয্য যন্ত্রণা। আর এই ফাঁকে বাহির থেকে একজন উঠার ছল করে ভিতরের হাত ঢুকিয়ে পটেকে কি আছে তা চেক করতে চাইলেন। এমন অবস্থা যে নীচে হাত নামিয়ে তা রোধ করারও কোন উপায় নেই। সেই ভাষায় প্রকাশ করার নয়। অবশেষে ট্রেন বিরতী ভঙ্গ করে পুনরায় চলা শুরু করল।

জয়দেবপুর রেলস্টেশন একটি অতীব পুরাতন স্টেশন এবং স্মরণীয় স্টেশন। এখান আমার নামার পালা। যদিও আমি গেটের খুব কাছাকাছি আছি, তারপরও আমি নামার কোন সুযোগ পাচ্ছি না। ভিতর থেকে বাহিরের ঠিকে ঠেলা দিচ্ছে যাতে নতুন লোক উঠতে না পারে। আবার গেটে যে আছে সেও এক ইঞ্চি জায়গা পাচ্ছে না যে নামার  সুযোগ দিবে।তারপরও আমাকে নামতে হবে। কারণ এখানে নামতে না পারলে আমার জন্যে তা হবে আরও ভয়াবহ।বাহিরে যে পরিমান লোক অপেক্ষা করছে তাতে আমার চো্খ ছানাবড়া। আমি কোন রকম উড়াল দেওয়ার মত করে। নেমে পড়লাম। তখন রাত ১২টা।সেই স্মৃতি ভুলার নয়।

ক্লাস টাইম:

আমাদের ক্লাস ছিল প্রতি সপ্তাহের রবিবার, মঙ্গলবার ও বৃহস্পতিবার বিকাল ৫.৩০ টা থেকে ৯.৩০টা। মাঝখানে একটি সামান্য বিরতি থাকতো। ক্লাসে ত্রিশজনের উর্ধ্বে প্রশিক্ষণার্থী  ছিল, যারা অধিকাংশই চাকরীজীবি। স্যার প্রায়ই বলতেন আমাদের ক্লাশে সবচেয়ে বেশি উপস্থিতি। সবার মাঝে ছিল অনেক সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক।

প্রশিক্ষণের অন্তর্ভুক্ত বিষয়সমূহ:

আমাদের প্রশিক্ষণের অন্তভুক্ত ছিল: এসইও, লোকাল এসইও, অফপেজ, অনপেজ এসইও, ফেসবুক, টুইটার, গুগল প্লাস, ইউটিউব, এমাজন সাইট ক্রিয়েশন, সিপিএ, লোকাল বিজনেস ইত্যাদি। যদিও আমার লেখা দুইলাইন তারপরও এগুলোর ভিতর রয়েছে প্রচুর শাখা প্রশাখা। যা স্যার অতি নিখুতভাবে আমাদের বুঝিয়ে দিয়েছেন। স্যারের সেই বুঝানোর বাচন ভঙ্গি আমার মনে পড়ে, যা ভুলার নয়। ধন্যবাদ স্যারকে।

Affiliate-Marketing-Batch-25
Affiliate Marketing Batch 25

শেষ কথা:

যেদিন আমরা বিদায় নেব অর্থ্যা ৎ আমাদের শেষ ক্লাশ সেইদিন যেন মনে হচ্ছিল ক্লাশটি আরও দীর্ঘায়িত হউক। যেন একজন আরেকজনকে ছেড়ে  যেতে মন চাইছিল না। যদিও আমরা গ্রুপে বা গ্রুপ মেসেজে নিয়মিত আমাদের বিভিন্ন সমস্যা বা করণীয় কী তা জানতে ও জানাতে পারি। এই বন্ধন চির অম্লান হোক। হোক আগামীর সম্ভাবনার এক উজ্জল প্রতীক। আমরা এগিয়ে যাব সফলতার পথ বেয়ে বেয়ে বাঁধার যত প্রাচীর সব ডিঙ্গিয়ে। সকল মৌনতা আর অভিমান ভুলে কাধেঁ কাঁধ মিলিয়ে আমরাই হব বিজয়ী। অনলাইনে আমরাও হবো বিজয়ী ছিনিয়ে আনব স্বর্ণ মুকুট।

About admin

2 comments

  1. আপনার সফলতার পরিধি আরও ব্যাপক হউক!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *