Home / Islam / সিয়াম সাধনার মাসে উপলব্ধি
সিয়াম সাধনার মাস

সিয়াম সাধনার মাসে উপলব্ধি

সিয়াম সাধনার মাসে আমাদের ভালোভাবে উপলব্ধি করা উচিত।আমাদের কিছু আদব কায়দা অবশ্যই মেনে চলা দরকার। অথচ আমরা এগুলোর প্রতি তেমন নজরই দেই না। যেমন-

ওজুখানায় প্রবেশ:

আমরা অনেকেই দেখা যাচ্ছে জুতা নিয়েই প্রবেশ করছি। অথচ সবাই নিয়ে প্রবেশ করলে সেটা ভিন্ন কথা। যদি জুতা খুলে প্রবেশ করার ব্যবস্থা থাকে আর সেখানে সবাই জুতা খুলে প্রবেশ করছে। আর দুয়েক জন জুতা নিয়ে প্রবেশ করছে এটা খুবই আদবের খেলাফ। শুধু আদবের খেলাপই নয়। বরং এটা মারাত্মক হতে পারে বা অন্যের জন্য বিপদের কারণ হতে পারে। কারণ জুতার নিচে  নাপাকি ময়লা লেগে থাকতে পারে।

মসজিদে অযথা ফ্যান বা লাইট অন করে রাখা ঃ

মসজিদে ফ্যান বা লাইট অযথা অন করা উচিত নয়। কারণ এটা একধরণের অপচয় হতে পারে। দেখা যাচ্ছে পাশে একজন ফ্যান অন করে নামাজ পড়ছেন তার খানিকটা পাশে আপনিও ইচ্ছা করলে নামাজ আদায় করতে পারেন একই ফ্যানের নীচে। অথচ তা না করে অন্য আর একটি ফ্যান অন করে নামাজ আদায় করলে সেটা অপচয় হতেই পারে। সুতরাং এটা আমাদের লক্ষ রাখতে হবে।

 

রাস্তায় চলাচলে করণীয় ঃ

আমরা যখন রাস্তায় চলি তখন আমাদেরকে কিছু মৌলিক নিয়ম নীতি মেনে চলতে হয়। যদি আমরা সেই নিয়মগুলো মেনে না চলি তাহলে বিভিন্ন বিশৃংখলা সৃষ্টি হতে পারে। যেমন ধরুন যে রাস্তা দিয়ে গাড়ি চলে সে রাস্তা দিয়ে যদি আমি হেটে চলি তাহলে যানজট সৃষ্টি হতে পারে। আবার যেটা পায়ে হাটার রাস্তা সেটাতে যদি কোন যানবাহন চলে তাহলেও চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হতে পারে। সুতরাং উভয়টিই বর্জনীয়।

 

সাধারণত যেসব গাড়ী রাস্তার ডানদিকে মোড় নেবে তাদেরকে ঠিক ডান পাশে থেকেই পূর্ব প্রস্তুতি নিতে হবে। হঠাৎ বাম পাশ থেকে ডান পাশে চলে গেলে দুর্ঘটনার সৃষ্টি হতে পারে। রাস্তায় গাড়ি চালানোর সময় নিজের গতি নিয়ন্ত্রণ রাখার চেষ্টা করতে হবে। সর্বোপরি এমন মনোভাব নিজের মাঝে পোষণ করতে হবে যেন নিজের দ্বারা অপরের অপকার কিছু না ঘটে।

 

রাস্তায় হর্ন বাজানো :

আমরা সবাই এটা জানি যে উচ্চ স্বরে হর্ন বাজানো একেবারেই অনুচিত। যদি হর্ণ বাজাতেই হয় তবে তা এমনভাবে বাজাতে হবে যাতে করে অন্যের কর্নের শ্রবণশক্তি নাশের কারণ না হয়ে দাড়ায়। অনেকে প্রতিযোগিতা করে গাড়ী চালান আর হর্ন বাজান এটা মোটেই কাম্য নয়।

 

সার্বক্ষনিক দোয়া ঃ

জীবনের প্রত্যেকটি মুহুর্তে মহান আল্লাহ পাকের নাম, ক্ষমতা প্রভাব প্রতিপত্তিকে স্বরণ করতে হবে। জীবনের সর্বময় ক্ষমতার একচ্ছত্র মালিক আল্লাহকে মেনে নিতে হবে।

 

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *