Home / Online Application / পাসপোর্ট করার সহজ উপায়
পাসপোর্ট করার সহজ উপায়
পাসপোর্ট করার সহজ উপায়

পাসপোর্ট করার সহজ উপায়

পাসপোর্ট শব্দটির সাথে অনেকেই পরিচিত। বিশেষ করে যারা বিদেশে কোন কারণে যাবার ইচ্ছা পোষণ করেছেন।

অনেকের কাছেই এব্যাপারে অভিযোগ শুনা যায়। তারা বলেন পাসপোর্ট করতে হলে দালাল ধরতে হয়। আমি বলি আপনি বোকার স্বর্গে বাস করছেন বলেই এমনটি বলছেন। কারণ আপনি যদি সঠিক কিছু নিয়ম মেনে চলেন তবে আপনাকে তারা হয়রানী করার সুযোগই পাবে না। আপনার সামান্য ‍কিছু দুর্বলতা বা ভুলের জন্য হয়তো অনেকে হয়রানীর শিকার হন।

পাসপোর্ট করতে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট :

পাসপোর্ট করার পূর্বে করণীয় কাজ-

  1. ব্যাংকে টাকা জমা দেওয়ার রশিদ
  2. অনলাইনে আবেদনের দুই কপি আবেদনপত্র
  3. জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি সত্যায়িত
  4. বর্তমানে আপনি যে জায়গায় কর্মরত আছেন তার ডকুমেন্ট

আমার বাস্তব অভিজ্ঞতার আলোকে প্রদত্ত তথ্যমতে-

কাগজপত্র সত্যায়িত করবেন কোথায়-

কোন উকিলের চেম্বার যিনি নোটারী পাবলিকের কাজ করেন। তার কাছ থেকে কাগজপত্র সত্যায়িত করে নিতে পারেন সহজেই। গাজীপুর আইনজীবি সমিতির ১নং হলরোমের এডভোকেট তকী প্রধানের কাছ থেকে নোটারী করতে পারবেন খুব সহজেই।

এছাড়া- আপনার কাগজপত্র যিনি সত্যায়িত করতে পারবেন তারা হলেন-

  1. সংসদ সদস্য
  2. সিটি কর্পোরেশনের মেয়র
  3. ডেপুটি মেয়র ও কাউন্সিলরগণ
  4. পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলর
  5. বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক
  6. বেসরকারি কলেজের অধ্যক্ষ
  7. বেসরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক
  8. জাতীয় দৈনিক পত্রিকার সম্পাদক
  9. আধাসরকারি/স্বায়ত্বশাসিত/রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার জাতীয় বেতন স্কেলের ৭ম ও তদুর্ধ গ্রেডের কর্মকর্তাগণ

তবে সতর্কতা :

পাসপোর্ট অফিসের আশেপাশের অনেকেই ডাকাডাকি করবে ভাই কোন সমস্যা !!!! তাদের কথায় কান দিছেন তো………….

পাসপোর্ট করতে করণীয় কিছু টিপস:  

প্রথমে অনলাইনে সঠিক তথ্য দিয়ে পাসপোর্টের আবেদন করুন। এজন্য গাজীপুর আঞ্চলিক কেন্দ্র থেকে যারা পাসপোর্ট করবেন তারা গাজীপুরের এস.পি অফিসের কাছে রাজবাড়ী ঢালে অবস্থিত গাজীপুর কম্পিউটার এন্ড ফটোকপি (Gazipur Computer and Photocopy) দোকান থেকেও সঠিক নিয়মে আবেদন করতে পারবেন।

সবশেষে লাঞ্চের বিরতিতে পড়ে গেলাম, আমার সামনে একজন আছেন আর অমনি ১:৩৩ এ লাঞ্চ ব্রেক। অপেক্ষা অপেক্ষা। অবশেষে পেলাম ডেলিভারী স্লিপ। তাতে লেখা আছে আগষ্টের ১২ তারিখ আমার পাসপোর্ট দিবে। উল্লেখ্য আমি আবেদনটি জমা দিয়েছি ২২ জুলাই ২০১৮ইং তারিখে। অর্থ্যাৎ ২১দিন পরই আমাকে পাসপোন্ট কালেকশন করতে বলছে।

তারপর বাকী অভিজ্ঞতা নিয়ে কিছু লিখবো সেই পর্যন্ত সবাই ভালো থাকবেন-আল্লাহ হাফেজ।

 

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *